Gallery

۩۞۩ বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধনের এই আত্নঘাতি সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানাই ۩۞۩

file.jpegসিম কিনতে বায়োমেট্রিক ডেটা
একটি ব্যবসায়িক সম্পর্কের হেতুর মেইন ইন্সট্রুমেন্টালডেটা হোল ভেরিফাইড এড্ড্রেস। তা নিশ্চিত করতে আমাদের ভোটার আইডি রয়েছে, ডিজিটাইজড পাসস্পোর্ট রয়েছে, যেখানে আমরা বায়োমেট্রিক ডেটা দেই রাষ্ট্রকে, কারন রাষ্ট্রই নাগরিকের জন্য সরবোচ্চ দায়িত্বশীল, যেসব দেশের মানুষের রাস্ট্র নেই, তাদের আল্লাহ্‌ ছাড়া কেউ নেই (হ্যাঁ এই সময়ে আলেপ্পোর উদাহরণ দেয়া যায়)।
এখন কথা হচ্ছে, যদি সরকার মনে করে ভোটার আইডি এবং ডিজিটাইজড পাসস্পোর্ট এই দুই ডেটাবেইজে গ্যাপ আছে, অসামাঞ্জস্য আছে তাইলে এই গ্যাপ্টা ফিল করুক। ইনট্রা স্তেইট অরগানাইজেশন এর মধ্যে ডেটার আদান প্রদান করুক। ইফিশিয়েন্ট ডেটা ম্যানেজমেন্ট করুক। (বাংলাদেশ এমন একটা দেশ যেখানে প্রাথমিক থেকে শুরু করে চৌদ্দ রকমের ডেটা নেয়া হয় না এমন কোন শিক্ষা, স্বাস্থ্য, ভর্তি, চাকরি সহ সামাজিক ইভেন্ট নেই।)
সরকার চাইলে এই কোর আইডি গুলোর বিপরীতে এড্রেস ভেরিফিকেশন প্রসেস ঠিক করতে পারে। বেসরকারি কোম্পানির কাছে শুধু ব্যাংক ইনফো এবং এড্রেস থাকতে পারে, এর বাইরে কিছুই নয়। কেউ ডিফল্টার হলে, তখন কোম্পানি রাষ্ট্রের পুলিশ বিভাগে/নিন্ম আদালতে যাবে উকিল মারফত, ব্যস এর বাইরে নাগরিকের সাথে ব্যবসায়িক কোম্পানির কোন ডেটা সংক্রান্ত লেনা দেনা নেই।
এমনকি এমপ্লয়ারও সাধারণত বায়োমেট্রিক ডেটা বেইজ নেয় না, যদি না তারা খুব কনফেডেন্সিয়াল কাজ করে (এক্সট্রিম রিসার্চ এন্ড মিলিটারি)।
আধুনিক সময়ে ভিন রাষ্ট্র তাদের নিরাপত্তার জন্য বায়োমেট্রিক ডেটা নিচ্ছে, এটা একটা আন্তর্জাতিক ফসালার মাধ্যমে একটা ফ্রেইওয়ার্কের মধ্যে করা হয়, এখানে এন্টি থেফট কিছু চেক এন্ড ব্যালান্স আছে যা জাতিসংঘ দেখা শোনা করে।
কি আর বলবো, ফোন কোম্পানিকে বায়োমেট্রিক ডেটা দেয়া। কতটা বিষাক্ত একটা সিদ্ধান্ত! একটা পুরো দেশের, একটা টেরেস্ট্রিয়াল ল্যান্ডের সকল আধিবাসীর!! এয়ারটেল্কে ডেটা দিলেন সেটা ইন্ডীয়ার কাছে বিক্রি হবে না, গ্রামীণকে দিলেন সেটা গুগল বা ইয়াহু বা অন্য কারো এর কাছে বিক্রি হবে না, এরকম এরকম নাও হতে পারে।হ্যাঁ হতে পারে মাল্টিনেশন কিছু কোম্পানি দায়িত্বশীল, ডেটা বিক্রি করবে না, কিন্তু এসব ডেটা প্রসেসকারি ব্যক্তির লোভ কিন্তু তারা সামলাতে পারে না। কোম্পানীর নীতিমালার বাইরে গিয়ে আসাধু ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ার উদাহরণ ভুরে ভুরে টেলিকম ইন্ডাস্ট্রির ভিতরে। দেশী বিদেশী গোয়ান্দারা এই লোভাতুর লোকগুলো দিয়ে নিয়ে ধনী, স্ট্রেটিজিক লোক, বিজনেস ম্যান, সায়েন্টিস্ট, পলিটিসিয়ান, ডিসিশন মেকার, সমাজ কর্মী কিংবা মিলিট্যান্ট দের তথ্য হাতিয়ে নিবে।
পৃথিবীর সভ্যতার পরতে পরতে ডিসক্রিমিনেশনেরউপাখ্যান। ঢাকা-দুবাই আর দুবাই-পশ্চিমা দেশ যারা একই কোম্পানির প্লেনে ভ্রমণ করেছেন তারা বুঝবেন, পৃথিবীর দেশে দেশে বাংলার শ্রমিক কি কি গলাধাক্কা খান সেটা আর নাই বললাম।
নাগরিক এবং সরকারের সুমতি হোক!
See More http://tinyurl.com/jlcffy2

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s